top of page
Search

সুসমাচার কি?

Updated: Feb 24, 2020

সুসমাচার বলতে আমরা বুঝি কোন ভাল বিষয়ের সংবাদ, যেমন কোন ব্যক্তি চাকরি পেয়েছেন, কেউ পরীক্ষায় পাশ করেছেন এগুলো তাদের জন্য, তাদের পরিবারের জন্য সুসমাচার। কিন্তু যখন আমরা খ্রীস্টানরা বাইবেলের দৃষ্টিতে ঈশ্বরের বিষয় প্রচার করি -তখন এটি স্বর্গীয় সুসমাচার, যা ঈশ্বর পাপিদের পরিত্রাণের জন্য দিয়েছেন, ইহা কোন জাগতিক সুসমাচার নয়, এই সুসমাচার জগত কেন্দীক নয়, এই সুসমাচার হল স্বয়ং যীশু, অর্থাৎ যীশুই সুসমাচার।


"কেননা ঈশ্বর যীশুর মধ্যে দিয়ে কিভাবে এই জগতের পাপিদের পরিত্রাণ করছেন ইহার নিঘু্র্তত্ত্ব  হল সুসমাচার।"


যখন, আমরা বলি যীশুই সুসমাচার এর অর্থ হলো যীশুর জম্ম, যীশুর পরিচর্যা কাজ, যীশুর শিক্ষা, যীশুর ক্রুশীয় মৃত্যু, যীশুর পুনুরুন্থান, যীশুর দ্বিতীয় আগমন প্রত্যকটি বিষয় পাপিদের জন্য স্বর্গীয় সুসমাচার।


কারণঃ এই জগতের মানুষ পাপি - #রোমীয় ৩:২৩। মানুষ নিজ চেষ্ঠায় পাপের সমস্যার সমাধান করতে পারে না, তাই ঈশ্বর পাপিদের মমতা করে, পাপিদের পরিত্রাণের জন্য নিজ পুত্র যীশুকে এই পাপময় জগতে প্রেরণ করলেন -


#যোহন ৩:১৬  কারণ ঈশ্বর জগৎকে এমন প্রেম করিলেন যে, আপনার একজাত পুত্রকে দান করিলেন, যেন, যে কেহ তাঁহাতে বিশ্বাস করে, সে বিনষ্ট না হয়, কিন্তু অনন্ত জীবন পায়।


এই সুসমাচারের উদ্দেশ্য হল - বিশ্বাসের দ্বারা পাপিদের উদ্ধার করা, যেন তারা নরকের আগুনে বিনষ্ট না হয় কিন্তু স্বর্গীয় অনন্ত জীবন প্রাপ্ত হয়।


কেন যীশুই সুসমাচারঃ কারণ হল যীশু শিষ্যদের পরিস্কার বলেছেন,

#যোহনঃ ১৪:৬ -  "আমিই পথ, সত্য ও জীবন আমার মধ্যে দিয়ে না গেলে কেউ পিতার কাছে যায় না।"


যীশু - কোন ধর্মকে পথ, সত্য, জীবন বলে নি, যীশুকে কোন আচার অনুষ্ঠানকে পথ, সত্য, জীবন বলে নি কিন্তু একমাত্র তাঁকে বলেছেন এই কারণে যীশুই ঈশ্বরের একমাত্র সুসমাচার, এই সুসমাচার ব্যতিরেকে বিকল্প কোন সুসমাচার নেই যার দ্বারা পাপিরা উদ্ধার প্রাপ্ত হবে, সুতরাং যীশুই সুসমাচার এটি প্রমাণিত।

#যোহন ৩:১৭  কারণ ব্যবস্থা মোশি দ্বারা দত্ত হইয়াছিল, অনুগ্রহ ও সত্য যীশু খ্রীষ্ট দ্বারা উপস্থিত হইয়াছে।


#১তীম ১:১৫  এই কথা বিশ্বসনীয় ও সর্ব্বতোভাবে গ্রহণের যোগ্য যে, খ্রীষ্ট যীশু পাপীদের পরিত্রাণ করিবার জন্য জগতে আসিয়াছেন; তাহাদের মধ্যে আমি অগ্রগণ্য;


#প্রকা ৩:২০  দেখ, আমি দ্বারে দাঁড়াইয়া আছি, ও আঘাত করিতেছি; কেহ যদি আমার রব শুনে ও দ্বার খুলিয়া দেয়, তবে আমি তাহার কাছে প্রবেশ করিব, ও তাহার সহিত ভোজন করিব, এবং সেও আমার সহিত ভোজন করিবে।


#প্রেরিত ৪:১২ আর অন্য কাহারও কাছে পরিত্রাণ নাই; কেননা আকাশের নীচে মনুষ্যদের মধ্যে দত্ত এমন আর কোন নাম নাই, যে নামে আমাদিগকে পরিত্রাণ পাইতে হইবে।


#যোহন ৫:৩৯ তোমরা শাস্ত্র অনুসন্ধান করিয়া থাক, কারণ তোমরা মনে করিয়া থাক যে, তাহাতেই তোমাদের অনন্ত জীবন রহিয়াছে; আর তাহাই আমার বিষয়ে সাক্ষ্য দেয়;


#যোহন ২০:৩১ কিন্তু এই সকল লেখা হইয়াছে, যেন তোমরা বিশ্বাস কর যে, যীশুই খ্রীষ্ট, ঈশ্বরের পুত্র, আর বিশ্বাস করিয়া যেন তাঁহার নামে জীবন প্রাপ্ত হও।


#রোমীয় ৩:২১ কিন্তু এখন ব্যবস্থা ব্যতিরেকেই ঈশ্বর-দেয় ধার্ম্মিকতা প্রকাশিত হইয়াছে, আর ব্যবস্থা ও ভাববাদিগণ কর্ত্তৃক তাহার পক্ষে সাক্ষ্য দেওয়া হইতেছে।


#১তীম ২:৫-৬কারণ একমাত্র ঈশ্বর আছেন; ঈশ্বরের ও মনুষ্যদের মধ্যে একমাত্র মধ্যস্থও আছেন,  তিনি মনুষ্য, খ্রীষ্ট যীশু, তিনি সকলের নিমিত্ত মুক্তির মূল্যরূপে আপনাকে প্রদান করিয়াছেন; এই সাক্ষ্য যথাসময়ে দাতব্য;


#রোমীয় ৩:১৬-১৭  কেননা আমি সুসমাচার সম্বন্ধে লজ্জিত নহি; কারণ উহা প্রত্যেক বিশ্বাসীর পক্ষে পরিত্রাণার্থে ঈশ্বরের শক্তি; প্রথমতঃ যিহূদীর পক্ষে, আর গ্রীকেরও পক্ষে। কারণ ঈশ্বর-দেয় এক ধার্ম্মিকতা সুসমাচারে প্রকাশিত হইতেছে, তাহা বিশ্বাসমূলক ও বিশ্বাসজনক, যেমন লেখা আছে, “কিন্তু ধার্ম্মিক ব্যক্তি বিশ্বাস হেতু বাঁচিবে”।


#গালাতীয় ১:৮  কিন্তু আমরা তোমাদের নিকটে যে সুসমাচার প্রচার করিয়াছি, তাহা ছাড়া অন্য সুসমাচার যদি কেহ প্রচার করে —আমরাই করি, কিম্বা স্বর্গ হইতে আগত কোন দূতই করুক—তবে সে শাপগ্রস্ত হউক।


অতএব - পাপের ক্ষমা শুধু বিশ্বাস দিয়ে যীশুতে পাওয়া যায় এটিই পাপিদের জন্য পাপ মুক্তির স্বর্গীয় সুসমাচার। 




128 views0 comments

Comments


bottom of page