top of page
Search

যীশু ঈশ্বর মানব হয়েও নিজেকে সেইসব প্রহারকদের হাতে “প্রদান” করেছিলেন কেন?


প্রিয়পাঠক, আসুন পবিত্র বাইবেল থেকে যিশাইয় পুস্তক পাঠ করি,


“আমি প্রহারকদের প্রতি আপন পৃষ্ঠ, যাহারা দাড়ি উপড়াইয়াছে, তাহাদের প্রতি আপন গাল পাতিয়া দিলাম, অপমান ও থুথু হইতে আপন মুখ আচ্ছাদন করিলাম না” (যিশাইয় ৫০:৬)।


যিশাইয় পুস্তকে এটা হল তৃতীয় দাসের অংশবিশেষ যা নিখুঁতভাবে খ্রীষ্টের দুঃখভোগের কথা তার ভাববাণীতে বলেছেন। এটা অন্যগুলির মধ্যে, সেই পাঠ্যাংশের বিষয়ে ছিল, যীশু যার উল্লেখ করেছিলেন সেইসময়ে যখন তিনি তাঁর শিষ্যদের বলেছিলেন,


“দেখ, আমরা যিরূশালেমে যাইতেছি; আর ভাববাদিগণ দ্বারা যাহা যাহা লিখিত হইয়াছে, সে সমস্ত মনুষ্যপুত্রে সিদ্ধ হইবে। কারণ তিনি পরজাতীয়দের হস্তে সমর্পিত হইবেন, এবং লোকেরা তাঁহাকে বিদ্রূপ করিবে, তাঁহার অপমান করিবে, তাঁহার গায়ে থুথু দিবে; এবং কোড়া প্রহার করিয়া তাঁহাকে বধ করিবে; পরে তৃতীয় দিবসে তিনি পুনরায় উঠিবেন” (লূক ১৮:৩১-৩৩)।


যিশাইয় ৫০:৬ পদের লক্ষণীয় ভাববাণী যীশু ব্যতীত অন্য কারও প্রসঙ্গে হতে পারে না। এটা আক্ষরিকভাবে প্রভু যীশু খ্রীষ্টের দ্বারাই পরিপূর্ণ হয়েছিল।


“আমি প্রহারকদের প্রতি আপন পৃষ্ঠ, যাহারা দাড়ি উপড়াইয়াছে, তাহাদের প্রতি আপন গাল পাতিয়া দিলাম, অপমান ও থুথু হইতে আপন মুখ আচ্ছাদন করিলাম না” (যিশাইয় ৫০:৬)।


ডঃ স্ট্রং, আমাদের বলছেন যে ইব্রীয় শব্দ “nâthan” এর মানে হল “প্রদান করা” প্রকৃতপক্ষে, যীশু তাঁর পৃষ্ঠদেশ প্রহারকদের প্রতি “প্রদান” করেছিলেন।তিনি তাঁর গাল তাদের প্রতি “প্রদান” করেছিলেন যারা তাঁর দাড়ি উপড়েছিল। তিনি তাঁর মুখ “প্রদান” করেছিলেন “অপমান এবং থুথু” দিতে। যীশু বলেছিলেন,


“আমি আপন প্রাণ সমর্পণ করি...কেহ আমা হইতে তাহা হরণ করে না, বরং আমি আপনা হইতেই তাহা সমর্পণ করি” (যোহন ১০:১৭-১৮)।


আবার, গেৎশিমানীর বাগানে, যখন তারা তাঁকে গ্রেপ্তার করতে এসেছিল, যীশু পিতরকে বলেছিলেন,


“তুমি কি মনে কর যে, আমি আমার পিতার কাছে বিনতি করিলে তিনি এখনই আমার জন্য দ্বাদশ বাহিনী অপেক্ষা অধিক দূত পাঠাইয়া দিবেন না? কিন্তু তাহা করিলে কেমন করিয়া শাস্ত্রীয় এই বচন সকল পূর্ণ হইবে যে, এরূপ হওয়া আবশ্যক?” (মথি ২৬:৫৩-৫৪)।


এমনকী যখন সৈন্যেরা তাঁকে গ্রেপ্তার করতে এসেছিল, তখন তা আটকাতে যীশু ১২০০০ স্বর্গদূত আহ্বান করতে পারতেন। কিন্তু ইচ্ছা করে তিনি সেইরকম করতে অস্বীকার করেছিলেন। হ্যাঁ, পরিত্রাতা “প্রহারকদের” প্রতি তার পৃষ্ঠদেশ এবং তাঁর গাল এবং তাঁর মুখমন্ডল “প্রদান” করেছিলেন। তিনি স্বয়ংকে সেই দুঃখভোগের প্রতি “প্রদান” করেছিলেন তাঁর এই পৃথিবীতে আসার উদ্দেশ্য পূর্ণ করতে, তাঁর লোকদের রক্ষা করতে, যারা তাঁর কাছে আসেন তাদের সকলকে মুক্তি দিতে। কেননা তিনি,


“সকলের নিমিত্ত মুক্তির মূল্যরূপে আপনাকে প্রদান করিয়াছেন” ( ১তীমথিয় ২:৬)।


তিনি,“আমাদের পাপসমূহের জন্য আপনাকে প্রদান করিলেন, যেন আমাদিগকে উপস্থিত মন্দযুগ হইতে উদ্ধার করেন” (গালাতীয় ১:৪)।


তিনি,“আমাদের নিমিত্তে আপনাকে প্রদান করিলেন, যেন মূল্য দিয়া আমাদিগকে সমস্ত অধর্ম্ম হইতে মুক্ত করেন” (তীত ২:১৪)।


তিনি বলেছিলেন,“আমি আপন প্রাণ সমর্পণ করি...কেহ আমা হইতে তাহা হরণ করে না, বরং আমি আপনা হইতেই তাহা সমর্পণ করি” (যোহন ১০:১৭-১৮)।


তিনি নিজেকে প্রদান করেছিলেন অত্যাচারীত, অপমানিত এবং ক্রুশারোপিত হতে কারণ তিনি আপনাকে ভালবাসেন! তিনি বলেছিলেন,


“কেহ যে আপন বন্ধুদের নিমিত্ত নিজ প্র্রাণ সমর্পণ করে, ইহা অপেক্ষা অধিক প্রেম কাহারও নাই” (যোহন ১৫:১৩)।


যীশু স্বর্গের সিংহাসন থেকে নেমে এসেছিলেন এই উদ্দেশ্যে: যাতে তাঁর নিজের জীবন সেই অত্যাচার এবং সেই অপমানের প্রতি প্রদান করা যায়, যেন আমরা বেঁচে থাকতে পারি! ওহ, কি দারুন এক চিন্তাধারা! তিনি বলছেন, “আমি প্রহারকদের প্রতি আপন পৃষ্ঠ প্রদান করিয়াছি কারণ আমি আপনাকে ভালবাসি। যাহারা দাড়ি উপড়াইয়াছে, তাহাদের প্রতি আমি আপন গাল প্রদান করিয়াছি কারণ আমি জানিতাম ইহাই ছিল একমাত্র উপায় যাহাতে আমি আপনাকে উদ্ধার করিতে পারি! শেষ বিচারের অপমানের হাত থেকে আপনার মুখ রক্ষা করিতে আমি অপমান ও থুথুর প্রতি নিজের মুখ প্রদান  করিয়াছি!” তিনি সেই ভয়ঙ্করের অধীনে নিজের জীবন সমর্পণ করেছিলেন কারণ তিনি আপনাকে ভালবাসেন এবং তিনি আপনার বন্ধু! ‘‘যীশু পাপির বন্ধু!’’

যীশু পাপীর বন্ধু,

পাপীর বন্ধু, পাপীর বন্ধু;

যীশু পাপীর বন্ধু,

তিনি আপনাকে মুক্ত করতে পারেন!


“আমি প্রহারকদের প্রতি আপন পৃষ্ঠ, যাহারা দাড়ি উপড়াইয়াছে, তাহাদের প্রতি আপন গাল পাতিয়া দিলাম, অপমান ও থুথু হইতে আপন মুখ আচ্ছাদন করিলাম না” (যিশাইয় ৫০:৬)।


যীশু স্বয়ন ঈশ্বর মানব হয়েও আপনার পরিত্রাণের জন্য নিজেকে প্রদান করেছেন!

34 views0 comments

Comments


bottom of page