top of page
Search

আপনি জানেন কি," যীশু খ্রীষ্টের পরিচিতি কি?"

Updated: Aug 30, 2020



প্রিয়পাঠক, যীশু বলেনঃ আমার পিতার বাড়ীতে থাকবার অনেক বাসস্থান আছে..... যোহন ১৪:২ ও ৩ পদ।


২ ও ৩ পদের মধ্যে যীশু তাঁর শিষ্যদের তাঁর উপর বিশ্বাস আনার কারণের কথা বলেছেন যেমন তারা ঈশ্বরের উপর বিশ্বাস করে। তিনি তাদের কারণ জানিয়েছেন তাঁর চলে যাওয়ার দরুণ কেন তাদের হৃদয় উদ্বিগ্ন হবে না। সেই কারণ হল তিনি স্বর্গে তাদের জন্য বাসস্থান প্রস্তুত করতে যাচ্ছেন


" আমার পিতার বাড়ীতে থাকবার আমার অনেক বাসস্থান আছে " তা না থাকলে আমি তোমাদের বলতাম, কারণ আমি তোমাদের জন্য বাসস্থান ঠিক করতে যাচ্ছি। আমি গিয়ে তোমাদের জন্য বাসস্থান ঠিক করে আবার আসব আর আমার কাছে তোমাদের নিয়ে যাব, যেন আমি যেখা‌নে থাকি তোমরাও সেখানে থাকতে পার।"


আমি আপনাদের বলছি, আজ যীশুর এই গুরুত্বপূর্ণ কথাটি খুব হালকা করে দেখবেন না, পৃথিবীর অন্য কেউ এমন করে বলেন নি। এরকম কথা মোহাম্মাদ বলতে পারে নি বা অন্য কেউ স্বর্গের বিষয়ে এমন কথা বলেন নি।


বাইবেলের এই অংশ হতে আজ দুটি বিষয় আমাদের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়।


প্রথম বিষয়টি যার বিষয়ে ভাবতে হবে তা হল যীশু তার নিজের সম্পর্কে কি বলছেন ও তাঁর নিজের পরিচিতর বিষয়ে তিনি কি প্রভাব বিস্তার করছেন।

দ্বিতীয় বিষয় হচ্ছে যীশুতে যারা বিশ্বাস করেছেন তাঁর সেই শিষ্যদের বিষয় তিনি কি বলছেন


যীশু তাঁর নিজের বিষয়ে কি বলেছেন? 


যীশু স্বর্গ থেকে এসেছেন। যীশুর স্বর্গে চলে যাবার উক্তির মধ্যে যে পূর্ব ধারণা ও জ্ঞান রয়েছে তা হল তিনি স্বর্গ থেকে এসেছেন। উদাহরণ স্বিরুপ যোহন ৬:৩৮ পদে যীশু বলেছেন তিনি স্বর্গ থেকে এসেছেন। যিনি আমাকে পাঠিয়েছেন তাঁরই ইচ্ছামত কাজ করতে স্বর্গ থেকে নেমে এসেছি।


আমরা এখন বাইবেলের একটি পদের উপর হাই তুলছি ও অগ্রসর হচ্ছি। কিন্তু যখন যীশু এই বিষয়ে কথা বলেছেন অনেকে বিরক্ত হয়েছেন। যোহন আমাদের বলছেন যে, তাঁর বিষয়ে অনেক ইহুদি বক বক করতে শুরু করেছে যখন তিনি বলছেন আমিই রুটি স্বর্গ থেকে নেমে এসেছি।


স্বর্গ থেকে? যোহন তাদের প্রতিক্রিয়া বর্ণনা করে চলেছেন। সেই ইহুদী নেতারা বলতে লাগলেন, "একি যোষেফের ছেলে যীশু নয়? এর মা বাবাকে তো আমরা চিনি। তবে এ কেমন করে বলে, "আমি স্বর্গ থেকে নেমে এসেছি? যোহন ৬:৩৮-৪২ পদ দেখুন।


আজ এই রকম কথা কি প্রতিদিন শরিয়তবাদীরা বিশ্বব্যাপী এমন কি বাংলাদেশেও বলছে না?


আপনি কোথা থেকে এসেছেন? হ্যা আমি বগুড়া থেকে এসেছি। আপনি ঢাকা থেকে কিন্তু যীশু স্বর্গ থেকে?


হ্যা কোন পাগল হয় তো এই কথা বলবে। কিন্তু আশ্চর্য ও সত্যি যে, যীশু নিজের সম্পর্কে এই কথা বলছেন, আমি স্বর্গ থেকে নেমে এসেছি।


হ্যা - স্বর্গ হল যীশুর বাড়ীঃ আবার লক্ষ্য করছেন যীশু স্বর্গ সম্পর্কে কিভা‌বে কথা বলছেন যেন তা কোন বিদেশের অপরিচিত জায়গা নয়, কিন্তু খুবই চেনা জায়গা? তিনি বলেছেন এটা আমার পিতার বাড়ী অর্থাৎ স্বর্গ যীশুর বাড়ী। তিনি তা নিশ্চিত করেছেন, এমন কি, ব্যাখ্যা করে বলেছেন যে, সেখানে অনেক বাসস্থান আছে। তিনি বলেছেন সেখানে অনেক জায়গা আছে না থাকলে আমি তোমাদের বলতাম।


বর্তমান এই পৃথিবীর অনেকেই স্বর্গ সম্পর্কে কথা বলে। কেউ কেউ মিথ্যা কথা বলে। অন্যরা দর্শনের কথা বলে। মৃত্যুর সময়ের অভিজ্ঞতার কথা বলে। বেশির ভাগ লোকই স্বর্গ সম্পর্কে আন্তাজে কথা বলে। তবুও আমরা জানি যে, স্বর্গের এই কথা মিথ্যা নয়, কোন প্রতারণা নয়, কোন ভুল কথা যীশুর মুখ দিয়ে বের হয় নি। তিনি সব সময়ে সত্য প্রকাশ করেছেন।


এখন যীশু তাঁর শিষ্যদের বলছেন, "আমি স্বর্গে যাচ্ছি। যীশু তাঁর বাড়ীতে ফিরে যাচ্ছেন।


স্বর্গ যীশুর সংগে আছে - স্বর্গ হল ঈশ্বরের সংগে সাক্ষাৎ করা।


যোহন ১৪:২-৩আমার পিতার বাটীতে অনেক বাসস্থান আছে, যদি না থাকিত, তোমাদিগকে বলিতাম; কেননা আমি তোমাদের জন্য স্থান প্রস্তুত করিতে যাইতেছি। আর আমি যখন যাই ও তোমাদের জন্য স্থান প্রস্তুত করি, তখন পুনর্ব্বার আসিব, এবং আমার নিকটে তোমাদিগকে লইয়া যাইব; যেন, আমি যেখানে থাকি, তোমরাও সেই খানে থাক।


ক. স্বর্গ হল যীশুর বাড়ী - এটা আমার পিতার বাড়ী।


খ. স্বর্গ হল এমন স্থান যা যীশু মাত্র প্রকাশ করতে পারে:  যদি না হত তবে তোমাদের বলতাম।


স্বর্গ প্রস্তুত যীশুর কাজ, যেখা‌নে শিষ্যরা থাকবেন, যীশু ইতি মধ্য তাঁর ক্রুশীয় রক্তে সেই জায়গা প্রস্তুত করেছেন। স্বর্গ যীশুর সংগে কেননা তিনি বলেছেন আমি আবার আসবও তোমাদের সেখানে নিয়ে যাব, যেন আমি যেখানে থাকি তোমরাও সেখানে থাকতে পার।


যোহন ১০:২৭-২৮ আমার মেষেরা আমার রব শুনে, আর আমি তাহাদিগকে জানি, এবং তাহারা আমার পশ্চাদগমন করে; আর আমি তাহাদিগকে অনন্ত জীবন দিই, তাহারা কখনই বিনষ্ট হইবে না, এবং কেহই আমার হস্ত হইতে তাহাদিগকে কাড়িয়া লইবে না।


এটি ছিল শিষ্যদের প্রতি যীশু খ্রীস্টের প্রথম প্রতিজ্ঞা।


এখন, আপনার খবর কি? আপনি কি যীশুর মেষ? আপনি কি তাঁর স্বর শুনতে পাচ্ছেন? আপনি কি তাঁকে অনুসরণ করছেন? আপনি কি তাঁর উপর নির্ভর করছেন? আমি আপনাকে নিশ্চয়তা দিচ্ছি পুনুরুন্থিত প্রভু যীশু নিজে, উত্তম মেষপালক স্বর্গে আপনার জন্য স্থান প্রস্তুত করছেন।


যীশু ঘোষণা করেছেন ৬ পদে -


" আমিই পথ, সত্য আর জীবন। আমাদিয়ে না গেলে কেউ পিতার কাছে যেতে পারে না।"


ভাই, আপনার কানে যীশুর এই কথাগুলো কেমন করে বাজে?


যীশুর এই কথা বাইবেলের সমস্ত সুসমাচারের মূল বিবৃতি


প্রথমত, এর মধ্যে তিনটি অটল দাবি রয়েছে। এখানে যীশু দাবি করে নি যে,


  • তিনি কেবল একটি পথ

  • তিনি কেবল একটি সত্য

  • তিনি কেবল একটি জীবন


কিন্তু তিনিই পথ, তিনিই সত্য ও তিনিই জীবন বলেছেন।


  • এর মানে হল তিনিই একমাত্র পথ

  • তিনিই একমাত্র সত্য

  • ও তিনিই একমাত্র জীবন


এটি যীশুর এক্সক্লুসিভ দাবি। আমরা খ্রীস্টানরা যে এখানের সঠিক শিক্ষাটি কোন ভাবেই বাদ না দিই। যীশু এই কথা বলে উপসংহার টেনেছেন যে, এই সত্য ছাড়া কোন ব্যতিক্রম নেই "আমার মধ্যে দিয়ে না গেলে কেই পিতার কাছে যেতে পারে না।" এখানে যীশু ক্রুশের কথা বলতে শুরু করেছেন। এখন তিনি তার নিজের দিকে দৃষ্টি দিতে শিষ্যদের আহবান করছে। শিষ্যরা যেন  যীশুর প্রতি নির্ভরশীল হয় যীশু তা পরিস্কার বলছেন। যীশু এখানে তাঁর নিজের বিষয় শিক্ষা দিচ্ছেন।


এটিই হল - পৃথিবীর অন্যান্য ধর্ম থেকে খ্রীস্টান ধর্মের সবচেয়ে বড় পার্থক্য।


কেননা পৃথিবীর অন্যান ধর্মগুলোর মূল বিষয় হল শিক্ষা। বৌদ্ধ, মোহাম্মদ, কনফিসিাস তারা সকলেই যে, পথ, সত্য ও জীবন এই রকম শিক্ষা থেকে দূরে থেকেছেন। কিন্তু ইতিহাসে প্রভু যীশু খ্রীস্টই একমাত্র নিজের প্রতি নির্দেশ করে এই শিক্ষা দিয়েছেন,


তিনিই পথ, তিনিই সত্য ও তিনিই জীবন কোন বিকল্প নেই।


যদি আজই আপনি বলেন হ্যাঁ, আমি যীশুতে বিশ্বাস করি যেন, তিনি আমাকে স্বর্গে নিয়ে যেতে পারেন। আমি আপনাকে উৎসাহিত করি যেন আপনিও অন্যকে এই সব কথা  বলে উৎসাহিত করতে পারেন। পৌল যেমন থিষলনকীয় চার্চকে স্মরণ করিয়ে দিয়েছিলেন ; শাস্তি পাবার জন্য নয় বরং আমাদের প্রভু যীশুখ  খ্রীস্টের মধ্য দিয়ে পরিত্রাণ পাবার জন্যই ঈশ্বর আমাদের ঠিক করে রেখেছেন। যীশু আমাদের জন্য মরেছিলেন যাতে আমরা বাঁচি বা মরি, আমরা যেন তাঁরই সংগে জীবিত থাকতে পারি। এইজন্য তোমরা এখন যেমন করছ তেমনি করে একে অন্যকে উৎসাহ দান করতে ও একে অন্যকে গড়ে তুলতে থাক।


    যীশু নামে আমেন?


আপনি কি স্বর্গে যেতে চান? তাহলে যীশুতে  বিশ্বাসে আস্থাশীল হোন।

71 views0 comments

Comentarios


bottom of page